শিক্ষাপ্রযুক্তির সংজ্ঞা দাও। শিক্ষার সঙ্গে এর সম্পর্ক কী?

শিক্ষা প্রযুক্তি

গ্যাগনে (Robert M Gagne) : গ্যাগনে-র মতে, সমগ্র শিক্ষা প্রক্রিয়াটি হল একটি সিস্টেম। শিক্ষাপ্রযুক্তি বিজ্ঞান শিক্ষণ প্রক্রিয়ার সুষ্ঠু পরিচালনার জন্য এবং তার ফলাফল বিচার করার জন্য বিভিন্ন ধরনের কৌশল উদ্ভাবন করে। (Educational technology can be understood as meaning the development of a set of systematic techniques and accompanying practical knowledge for desiring testing and operating schools as educational systems.") শিখন প্রক্রিয়াকে বিকশিত করার জন্য শিক্ষাপ্রযুক্তির প্রয়োজন।

ন্যাশনাল সেন্টার ফর প্রােগ্রাম লার্নিং-এর মতে : “শিক্ষণ এবং প্রশিক্ষণে উৎকর্ষ বৃদ্ধির জন্য শিক্ষণ এবং শিখনের শর্তাবলি সম্পর্কীয় বিজ্ঞান ভিত্তিক জ্ঞান ব্যবহারকে শিক্ষা প্রযুক্তি বলে।

এস এস কুলকার্নি (১৯৬৮)-র মতে : "শিক্ষা প্রক্রিয়ায় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির নীতি এবং সাম্প্রতিক আবিষ্কারগুলিকে প্রয়ােগ করাকেই শিক্ষা প্রযুক্তি বলে।

শিক্ষার সঙ্গে প্রযুক্তির সম্পর্ক

শিক্ষা প্রক্রিয়ার উৎকর্ষতা বৃদ্ধির জন্য অপরিহার্য হয়ে উঠেছে শিক্ষা ও প্রযুক্তিবিদ্যার পরস্পরের মধ্যে যােগাযােগ। শিক্ষার উদ্দেশ্য হল শিক্ষার্থীর অভ্যন্তরীণ সত্তার পরিপূর্ণভাবে বিকাশ ঘটিয়ে সমাজের উপযােগী করে গড়ে তোলা। প্রযুক্তি বিজ্ঞান হল সেই চাবিকাঠি যে শিক্ষার এই উদ্দেশ্যকে দ্রুত সাফল্যের দোড়গােড়ায় পৌছে দিতে সাহায্য করছে। শিক্ষার সঙ্গে প্রযুক্তির সম্পর্ক কীভাবে ওতপ্রােতভাবে জড়িত তা নীচে উল্লেখ করা হল ー

(১) শিক্ষার লক্ষ্য : শিক্ষার লক্ষ্য নির্ধারণ, পাঠক্রম প্রণয়ন, শিক্ষণ-শিখন প্রক্রিয়াকে কার্যকরী করার উদ্দেশ্যে বিভিন্ন কৌশল ও পদ্ধতির উন্নতিবিধান, ব্যবস্থাপনা, মূল্যায়ন ইত্যাদি সবক্ষেত্রেই শিক্ষা প্রযুক্তির বৈজ্ঞানিক নীতি প্রয়ােগ করে।

(২) নিয়ন্ত্রক হিসেবে : শিক্ষা প্রযুক্তি শিক্ষার পরিবেশ, মাধ্যম এবং পদ্ধতিকে নিয়ন্ত্রণ করে শিখন প্রক্রিয়া সহজতর ও ত্বরান্বিত করে।

(৩) সহজ ব্যাখ্যা : কোনাে বিষয়ের ব্যাখ্যা দেওয়া, উদাহরণ দেওয়া এবং তাকে প্রত্যক্ষ করানাের জন্য শিক্ষা প্রযুক্তির প্রয়ােজন।

(৪) ইনপুট ও আউটপুট : শিক্ষা প্রযুক্তির সঙ্গে শিক্ষার ইনপুট, শিক্ষা প্রক্রিয়া এবং শিক্ষার আউটপুট সংক্রান্ত দিকগুলি জড়িত।

(৫) সিস্টেম দৃষ্টিভঙ্গি : শিক্ষা প্রযুক্তি কেবলমাত্র শিক্ষায় ইলেকট্রনিক মাধ্যমের ব্যবহারেই আবদ্ধ নয়, সিস্টেম হল দৃষ্টিভঙ্গির অন্তর্গত।

(৬) সামগ্রিক ধারণা : শিক্ষা প্রযুক্তি কেবলমাত্র শিক্ষার দর্শন, শ্রবণ উপকরণ নয়। এটি একটি সামগ্রিক ধারণা। এর অন্তর্গত হল নির্দেশদান প্রযুক্তি, প্রােগ্রাম শিখন, অনুশিক্ষণ, সিস্টেম বিশ্লেষণ ইত্যাদি।

(৭) পাশ্চাত্য জ্ঞান : প্রযুক্তির মাধ্যমে শিক্ষক পাশ্চাত্য জ্ঞান-বিজ্ঞানকে শিক্ষার্থীদের সামনে তুলে ধরতে পারেন।

(৮) পাঠক্রম পরিকল্পনা ও শিক্ষা প্রযুক্তি : শিক্ষার লক্ষ্য অর্জনে উপযুক্ত পাঠক্রম পরিকল্পনা শিক্ষা প্রযুক্তি সাহায্য করে। বর্তমানে পাঠক্রম পরিকল্পনায় যে বিভিন্ন ধরনের মডেলের কথা বলা হয় (যেমন টাবার মডেল, লাউটন মডেল ইত্যাদি) তা শিল্প শিক্ষার দান।

(৯) মূল্যায়ন ও শিক্ষাপ্রযুক্তি : মূল্যায়ন শিক্ষা প্রক্রিয়ার একটি গুরুত্বপূর্ণ স্তর। এই মূল্যায়নের ক্ষেত্রে শিক্ষাপ্রযুক্তি বিশেষভাবে গুরুত্ব বজায় রাখে। যেমন-বহু বিকল্প ভিত্তিক প্রশ্ন (MCQ)নম্বর দান, মার্কশিট প্রস্তুত, নির্দিষ্ট ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ফল প্রকাশ ইত্যাদি।

সুতরাং শিক্ষার সঙ্গে প্রযুক্তির অবিচ্ছেদ্য সম্পর্ক আছে। শিক্ষার শিক্ষা ক্ষেত্রে প্রযুক্তির ব্যবহার হচ্ছে। আবার শিক্ষার প্রযুক্তি ব্যবহারের ফলে প্রযুক্তির বিভিন্ন দিকের বিকাশ সম্ভব হয়েছে। সুতরাং, প্রযুক্তি সম্পর্কে জ্ঞানার্জন শিক্ষার অন্যতম উদ্দেশ্য হিসেবে বিবেচিত হয়।